বাংলা ও বাঙালী

Sarkarverse থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
বাংলা ও বাঙালী-র তৃতীয় সংস্করণের প্রচ্ছদপট।

বাংলা ও বাঙালী হ'লো প্রভাত রঞ্জন সরকার-এর রচিত একটি বই। এই বইতে তিনি বাংলা এবং বাঙালীর ইতিহাস, সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য বিষয়ে আলোচনা করেছেন। বাংলা ও বাঙালী আনন্দমার্গ প্রচারক সংঘ দ্বারা প্রথম প্রকাশিত হয় ৫ মার্চ ১৯৮৮ সালে। বই-টির বর্তমান প্রকাশক আচার্য বিজয়ানন্দ অবধূত।

উৎসর্গীকরণ

প্রভাত রঞ্জন সরকার বাংলা ও বাঙালী বইটি উৎসর্গ করেছেন আনন্দ নগরে প্রাথমিক বাসিন্দাদের। উৎসর্গপত্রে তিনি লিখেছেন—

আনন্দনগরে যখন দিনদুপুরে শেয়াল ডাকত তখন যাঁরা মাটির পিদিমে তেলের সলতেয় সন্ধ্যাদীপ জ্বেলে এসেছিলেন তাঁদের নামে

অধ্যায়সমূহ

বাংলা ও বাঙালী-র তৃতীয় সংস্করণ (ডিসেম্বর ২০১১) অনুযায়ী বইটির অধ্যায়সমূহ—

প্রথম খণ্ড

  1. তন্ত্র ও আর্য ভারতীয় সভ্যতা
  2. সভ্যতার আদি বিন্দু রাঢ়
  3. গণ্ডোয়ানা : মানবসভ্যতার সূতিকাগৃহ
  4. গণ্ডোয়ানাল্যান্ড ও বাঞলার নদীমাতৃক সভ্যতা
  5. বাঙলার নদী-সভ্যতা
  6. যেথায় মোদের জমম-মরণ এই সেই গৌড়
  7. গোড়ার দিকের জাত-বাঙালী
  8. "যাকে নিয়ে মোদের গর্ব এই সেই বাঙালী"
  9. বাঙলার ইতিহাস— ১
  10. বাঙলার ইতিহাস— ২
  11. বাঙলার নববর্ষ
  12. বাঙলার বসন্তোৎসব
  13. শৌর্যে বাঙালী
  14. বাঙালী কি বীরেশবিজয়কে ভুলে যাবে?
  15. রাঢ় ও প্রতিবেশী মগধ— ১
  16. রাঢ় ও প্রতিবেশী মগধ— ২
  17. নোনা-ধরা হাওড়াকে বাঁচাতে হবে
  18. রাঢ়ীয় সংস্কৃতির সংক্ষিপ্ত ইতিহাস— মাকড়দহ
  19. বাঙলার সংস্কৃতির অন্যতম পীঠস্থান— নবদ্বীপ
  20. নদীয়ার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস
  21. গাঙ্গুড়ের নীরে ভাসাইয়া ভেলা

দ্বিতীয় খণ্ড

  1. বঙ্গ/বঙ্গ
  2. বাঙলা ও প্রতিবেশী রাজ্য
  3. বাঙলা ও কেরলের সাংস্কৃতিক যোগাযোগ
  4. বাঙলা ও কাছাড়ের সাংস্কৃতিক ও নৃতাত্বিক সম্পর্ক
  5. বাঙলা লিপি
  6. বাঙালী–ধর্মচিন্তায়
  7. বাঙলার ভূগোল-বিচিত্রা
  8. বাঙালীর সামাজিক পরিচিতি
  9. বাঙলার ইতিহাসের টুকিটাকি
  10. বাঙালী-কৃষিতে
  11. বাঙলার শিল্প
  12. বাঙলার কতিপয় মনীষী
  13. বাঙলার দুর্গোৎসব
  14. দীপাবলী –১
  15. দীপাবলী –২
  16. দীপাবলী –৩
  17. বাঙলা লিপি প্রসঙ্গে –২
  18. কার্য সিদ্ধির কৌশল
  19. কুরু পুণ্যম্‌ অহোরাত্রম্‌
  20. বাঙলার কুটীর শিল্প
  21. বিবিধ
  22. প্রভাত-সঙ্গীতে বাংলা ও বাঙালী

প্রকাশনা

বাংলা ও বাঙালী আনন্দমার্গ প্রচারক সংঘ দ্বারা প্রথম প্রকাশিত হয় ৫ মার্চ ১৯৮৮ সালে। তখন এই বইটি এক খণ্ডের ছিল। এর পরে ২৬ জানুয়ারী ১৯৯৭ সালে দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হয়। এই সময়ে বইটিকে দুইটি খণ্ডে বিভক্ত করা হয়। বইটির তৃতীয় মুদ্রাঙ্কন হয় ৪ ডিসেম্বর ২০১১ সালে। এই সময় প্রথম সংস্করণের মতো বইটি আবার এক খণ্ডে প্রকাশিত হয়।

তথ্যসূত্র